সোমবার | ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং |

নরসিংদীতে তেলের লড়ি থেকে বিপুল পরিমাণ মাদক দ্রব্য সহ আটক -৩

নিজস্ব প্রতিবেদক,শুক্রবার,১৮ মে ২০১৮: নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা পুলিশের বিশেষ অভিযানে একটি তেলবাহী লড়ি থেকে বিপুল পরিমাণ ফেনসিডিল ও গাজা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় এক নারী সহ ৩ জন কে আটক করা হয়। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে নরসিংদীর মাধবদী থানাধীন চৈতাব এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক হতে এ বিপুল পরিমাণ মাদক গুলি উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় আটককৃতরা হলো, নারায়নগঞ্জ এর সিদ্দিরগঞ্জ থানার এছর এলাকার আমজাদ খানের ছেলে রিগান আহমেদ (২১), একই এলাকার বাবুল মিয়ার ছেলে সজিব মিয়া (২৩) ও ব্রাহ্মনবাড়িয়ার আখাউরা থানার বাউতলা এলাকার মাদক ব্যবসায়ী হান্দু মিয়ার স্ত্রী মোসাঃ নেহেরা (৩৫)।

নরসিংদী গোয়েন্দা পুলিশের দেয়া এক সংবাদ বার্তায় জানানো হয়, জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক খোকন চন্দ্র সরকার এর নেতৃত্বে গোয়েন্দা পুলিশের একটি অভিযানিক দল ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের চৈতাব নামক স্থানে একটি তেল বহনকারী ট্যাংকার ট্রাক তল্লাশী করে। তল্লাশী করে ট্যাংকার এর ভিতরে বিশেষ কৌশলে রাখা ৭ টি প্লাস্টিকের বস্তায় রাখা ৮২০ পিস ফেনসিডিল ও ২৬ কেজী গাজা পাওয়া যায়। এসময় ট্রাকের চালক ও হেলপার কে আটক করা হয়। পরে তাদের মোবাইলে ফোন দেয়ার সূত্র ধরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মাদক ব্যাবসায়ী হান্দু মিয়া ও তার স্ত্রী কে গ্রেফতার করতে

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় অভিযান চালানো হয়। এসময় হান্দু মিয়া কে না পাওয়া গেলেও তার স্ত্রী ও মাদক ব্যবসার সহযোগী নেহেরা কে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃতরা জানায়, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার হান্দু মিয়া এ অভিনব উপায়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে মাদক সরবারহ করতো। তেলের ট্যাংকার কেউ তল্লাশী করতোনা বলেই তারা নির্বিঘ্নে মাদকের ব্যবসা করে আসছিল।

বিপুল পরিমাণ মাদক উদ্ধার ও ৩ জন কে আটকের ঘটনায় উপ-পরিদর্শক খোকন চন্দ্র সরকার বাদী হয়ে মাধবদী থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে নিয়মিত মামলা দায়ের করেছেন।

fb-share-icon35
fb-share-icon20

Enjoy this blog? Please spread the word :)