শনিবার | ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং |

নওফেলের বরাত দিয়ে সাংবাদিককে হত্যার হুমকি দিলেন চবির ছাত্রলীগ নেতা রুবেল

রিয়াজ মুন্না,চবি

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের কোন গ্রুপকে চিনেন না বলে জানিয়েছেন আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল । সম্প্রতি মুঠোফোনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন ।

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের রাজনীতি দীর্ঘদিন ধরে মহিউদ্দিন ও নাছির এ দুইটি ধারায় পরিচালিত হয়ে আসছে । আওয়ামীলীগ নেতা মহিউদ্দিন চৌধুরীর প্রয়াণের পর নেতাকর্মীরা তাঁর বড় ছেলে মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের অনুসারী হিসেবে পরিচয় দিয়ে আসছে।

সম্প্রতি ছাত্রলীগের এই অংশের একাধিক নেতা নিজেকে এই অংশের (নওফেলের অনুসারী হিসেবে পরিচিত) দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা হিসেবে সাংবাদিকদের কাছে দাবি করে আসছেন। তাদের দাবি, নওফেল তাদের দায়িত্ব দিয়েছেন ছাত্রলীগের ঐ গ্রুপের দেখভাল করতে। এছাড়া শাখা ছাত্রলীগের বিলুপ্ত কমিটির সহসভাপতি রেজাউল হক রুবেল সাংবাদিকদের কাছে দাবি করছেন, ‘সিএফসি গ্রুপের দেখভালের জন্য নওফেল তাকে দায়িত্ব দিয়েছেন। তাই সাংবাদিকরা সংবাদ পরিবেশনের ক্ষেত্রে যেন শুধু তার কমেন্টই ব্যবহার করে। ‘এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কোন গ্রুপ আমি চিনি না । আর এখানে দেখভালের জন্য আমি কাউকে দায়িত্ব দেই নি । রেজাউল হক রুবেল নামের কাউকে আমি চিনি না ।’ তিনি আরো বলেন, ‘এখানে কেউ অপকর্ম করলে দায়-দায়িত্ব সম্পূর্ণ তাদের। আমি কোন অপরাধীর দায়িত্ব নিব না।’উল্লেখ্য, প্রয়াত আওয়ামীলীগ নেতা এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর প্রয়াণের পর তাঁর ছেলে দলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক নওফেলের নাম ভাঙ্গিয়ে বিভিন্ন সময় অপকর্ম করে আসছে শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ে উভয় পক্ষের গ্রুপিংয়ে মারামারির ঘটনায় সংবাদ সংগ্রহকালে গ্রুপের অন্য নেতার মতামত নেয়ায় সাংবাদিকদের সাথে চড়াও হন রুবেল । সর্বশেষ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দৈনিক পূর্বদেশের জোবায়ের চৌধুরীকে হত্যার হুমকি দেন রুবেল ।

জোবায়ের চৌধুরী বলেন,’আমি শ্রীমঙ্গল যাওয়ার জন্য বুধবার রাত সোয়া নয়টার দিকে দামপাড়া বাস কাউন্টারে আসি। তখন ছাত্রলীগ নেতা রেজাউল হল রুবেল এসে আমার সাথে কথা বলে। তিনি আমার কাছে জানতে চান, নিউজ করার সময় কেন তার দেওয়া হয়নি কেন? তাকে নওফেল ভাই দায়িত্ব দিয়েছে। আমি বললাম, নওফেল ভাই বলেছেন ওনি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কোন গ্রুপ চিনেন না। এরপর রুবেল উত্তেজিত হয়ে আমাকে বলেন, কোন সাংবাদিক যদি তার কমেন্ট না দেয় তাহলে তাকে জবাই করে মেরে ফেলবে। আমাকেও জবাই করবে। এসময় তার সাথে থাকা ছাত্রলীগ নেতা নাজমুল ও অনিক সাব্বির তাকে নিবৃত্ত করে। আমি আমার সংগঠনের নেতৃবৃন্দকে জানিয়েছি বিষয়টি। আইনি পদক্ষেপ নিব।’
বিষয়টির সত্যতা জানতে চাইলে তা অস্বীকার করেন রুবেল।

fb-share-icon35
fb-share-icon20

Enjoy this blog? Please spread the word :)