সোমবার | ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং |

নতুন বইয়ের গন্ধে শিশুরা মেতেছে প্রাণের উচ্ছ্বাসে

নিউজ ডেস্ক | মঙ্গলবার ,০১ জানুয়ারি ২০১৯:
রাজশাহীর পবা উপজেলার ভালাম-ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির শিশু শিক্ষার্থী আফরিন, সাবিহা, ইয়ামিন, মিথিলা, তাসলিমুল, নুহু। এছাড়াও একই উপজেলার মতিয়াবিল উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীরা মঙ্গলবার (১ জানুয়ারী) সকাল ৯টার আগেই বিদ্যালয়ে হাজির হয়েছিল। নতুন বই পাবে বলে। বেলা ১১টার দিকে তারা নতুন বই হাতে পেলো। এরপরে উৎসবে মেতে উঠে শিশু কিশোররা।

এদিন ভালাম-ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩০০ জন এবং মতিয়াবিল উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রায় ৫শ’ শিক্ষার্থীর মাঝে বই বিতরণ করা হয়। এরপরেই নতুন বইয়ের ঝকঝকে পাতা ও মন মাতানো বইয়ের গন্ধে উৎসবে মেতে উঠে কচি শিক্ষার্থীরা।

সারা দেশের মত পুরো রাজশাহী জেলার প্রাথমিক, মাধ্যমিক, এবতেদায়ি, দাখিল পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আনুষ্ঠানিকভাবে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণের উৎসব চলছে। শিক্ষা মানোন্নয়নে বছরের প্রথমদিনে নতুন বই বিতরণ বর্তমান সরকারের একটি যুগান্তকারি পদক্ষেপ।

ভালাম-ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনিসুর রহমান জানান, বছরের প্রথম দিনে শিশুদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়ার আনন্দটাই আলাদা। শিশুদের এ উল্লাস দেখতে অনেক ভালোলাগে। নতুন বই পেলে শিশুদের পড়ার প্রতি আগ্রহ বাড়ে বেশ।

মতিয়াবিল উচ্চ বিদ্যালয়ে বই বিতরণের উদ্বোধন করেন প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি শফিউর রহমান স্বপন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রধান শিক্ষক আতাউর রহমান। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সহকারি প্রধান শিক্ষক আব্দুল মালেক। উপস্থিত ছিলেন ম্যানেজিং কমিটির সদস্য শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক, জয়নাল আবেদীন, নার্গিস বেগম, সমাজসেবক অ্যাডভোকেট মোমিনুল, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক সামশুল হক প্রমুখ।

জেলার নওহাটা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি (ভো.) উচ্চ বিদ্যালয়ের ৩২০ জন শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই বিতরণ করা হয়েছে।

এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সুপারিনটেনডেন্ট আব্দুল হান্নান চৌধুরী জানান, বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীর হাতে বই তুলে দেয়া বর্তমান সরকারের বিরাট সাফল্য। বছরের প্রথম দিন থেকেই শিক্ষার্থীরা লেখাপড়া শুরু করতে পারে।

বছরের প্রথম দিনেই নতুন বইয়ের উৎসবে মেতেছে শিশুরা। বিভাগীয় শহর রাজশাহীতে বছরের প্রথম দিনে নতুন বই বিতরণ করা হয়েছে ৫০ লাখ শিক্ষার্থীর মাঝে। জেলায় প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে বই বিতরণের সকল প্রস্তুতি আগে থেকেই সম্পন্ন ছিল।

এদিকে বেলা ১১টায় রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুলে প্রধান অতিথি হিসেবে বই বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। সভায় সভাপতিত্ব করবেন রাজশাহী জেলা প্রশাসক (ডিসি) এসএম আব্দুল কাদের।

এদিকে, ২০১৯ সালে রাজশাহী জেলায় প্রাথমিক ও মাধ্যমিকে শিক্ষার্থী রয়েছে ৬ লাখ ৪৯ হাজার ৬৪২ জন। এসব শিক্ষার্থীর জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো সকাল থেকেই বই বিতরণ শুরু করেছে। এই নতুন বইয়ের সংখ্যা ৪৯ লাখ ৯৯ হাজার ৭৪৩টি।

রাজশাহী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, জেলায় নতুন বছরে প্রাথমিক পর্যায়ে ৩ লাখ ৫ হাজার ৬৩৬ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। শিক্ষার্থীদের হাতে বিভিন্ন বিষয়ের ১৪ লাখ ১১ হাজার ৫৫৮টি নতুন বই তুলে দেয়া হচ্ছে। তাই সকল প্রস্তুতি এরই মধ্যে শেষ করা হয়েছে। প্রথম দিন কার্যক্রম শুরু হবে এবং কয়েকটি ধাপে বই বিতরণ কার্যক্রম শেষ হবে।

এছাড়া জেলা শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন জানান, মাধ্যমিক পর্যায়েও বই বিতরণের কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়েছে। তিনি জানান, ২০১৯ সালে বিভিন্ন শ্রেণিতে নতুন শিক্ষার্থী ৩ লাখ ৪৪ হাজার ৬ জন। রাজশাহীর মাধ্যমিক পর্যায়ের এই শিক্ষার্থীরা নতুন বছরের প্রথম দিনে ৩৫ লাখ ৮৮ হাজার ১৮৯টি বই হাতে পাবে। প্রথমদিন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। দ্রুতই শেষ করা হবে।

fb-share-icon35
fb-share-icon20

Enjoy this blog? Please spread the word :)