শনিবার | ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং |

বিএসএমএমইউ-তে যেতে চান না খালেদা

নিজস্ব প্রতিবেদক | রবিবার, ১০ মার্চ ২০১৯:
কারাগারে থাকা বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে নেয়ার যাবতীয় প্রস্তুতি নেয়া হলেও তিনি যাবেন কি না তা এখনো নিশ্চিত নয়। কারা সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

কারা সূত্র জানায়, গতকাল (শনিবার) তাকে বিএসএমএমইউ-তে নেয়ার কথা বললে তিনি অনীহা জানান। তবে তিনি কেন সেখানে যাবেন না সেই কারণ স্পষ্ট করেননি। আজ (রোববার) দুপুর ১১টা ৫০ মিনিট পর্যন্ত তিনি ঘুম থেকে ওঠেননি। ঘুম থেকে উঠলে তার যাওয়া-না যাওয়ার বিষয়ে আবার জানতে চাওয়া হবে।

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মাহবুব আলম জাগো নিউজকে বলেন, তাকে বিএসএমএমইউ-তে নেয়ার সকল প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। তবে তিনি যাবেন কি না তা এখনো নিশ্চিত নয়।

এদিকে খালেদা জিয়াকে চিকিৎসা দেয়ার জন্য প্রস্তুতি নিয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ও। বিএসএমএমইউ-এর পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আব্দুল্লাহ আল হারুন বিএসএমএমইউতে খালেদা জিয়াকে নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে বিএসএমএমইউতে আনা হচ্ছে।’

দুপুর ১২টার পর খালেদা জিয়াকে হাসপাতালে নেয়ার কথা ছিল। তবে কারা কর্তৃপক্ষ চাইলেও খালেদা জিয়ার সেখানে যাওয়া-না যাওয়ার বিষয়টি এখনও ঝুলে আছে।

গত বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি বেগম জিয়া কারাবন্দি হওয়ার পর থেকে বিভিন্ন সময়ে বিএনপির পক্ষ থেকে অভিযোগ তোলা হয়, কারাগারে তাদের চেয়ারপারসনের যথাযথ চিকিৎসা হচ্ছে না।

অন্যদিকে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, জেল কোড অনুযায়ী খালেদা জিয়াকে সর্বোচ্চ চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। বিএনপি তার অসুস্থতা নিয়ে রাজনীতি করছে।

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি সংবাদ সম্মেলনে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেন, দ্বিতীয় দফা চিকিৎসা শেষে কারাগারে ফিরিয়ে নেয়ার পর তিন মাসের বেশি সময় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কোনো চিকিৎসা পাচ্ছেন না।

নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা এবং চিকিৎসা না দেয়ায় খালেদার রোগগুলো মারাত্মক রূপ নিয়েছে বলেও সংবাদ সম্মেলনে দাবি করেন বিএনপি মহাসচিব। খালেদা জিয়ার কোনো ক্ষতি হলে এর দায় সরকারকেই নিতে হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা নিশ্চিতের দাবিতে এর আগে গত বছরের ২২ এপ্রিল ও ৯ সেপ্টেম্বর বিএনপির সিনিয়র নেতারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন। দু’বারই তারা বেগম জিয়াকে ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসার দাবি জানিয়েছিলেন।

সরকারের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল ও সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসা নেয়ার প্রস্তাব দেয়া হলে খালেদা জিয়া তা প্রত্যাখ্যান করেন।

fb-share-icon35
fb-share-icon20

Enjoy this blog? Please spread the word :)