বৃহস্পতিবার | ১লা অক্টোবর, ২০২০ ইং |

রোহিঙ্গা গণহত্যার প্রতিবেদন করে পুলিৎজার পেল রয়টার্স

মিডিয়া ডেস্ক | বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০১৯:
মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের (সাবেক আরাকান) ইনদিন গ্রামে ১০ রোহিঙ্গা মুসলিমকে নৃশংসভাবে হত্যা করে কবর দিয়েছিল মিয়ানমার সেনাবাহিনী ও বৌদ্ধ গ্রামবাসী।

এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে সেই তথ্য উঠে আসে রয়টার্সের খবরে। এ ঘটনায় বিশ্বব্যাপী আলোড়ন তৈরি হয়েছিল।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) সেই হত্যাকাণ্ডের তথ্যফাঁসের ঘটনার প্রতিবেদন ও মধ্য আমেরিকার অভিবাসীদের যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় চাওয়ার একটি আলোকচিত্রের জন্য পুলিৎজার পুরস্কার জিতেছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

২০০৮ সালের পর থেকে ব্রিটিশ এই বার্তা সংস্থাটি সাতবার পুলিৎজার পেয়েছে।

অনুষ্ঠানে রয়টার্সের প্রধান সম্পাদক স্টেফেন জে আডলের বলেন, যখন কাজের স্বীকৃতির জন্য সন্তোষ প্রকাশ করা হচ্ছে, তখন আমাদের চেয়ে যাদের নিয়ে প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে, তাদের প্রতিই সবার মনোযোগ আকর্ষণ করা উচিত। বিশেষভাবে রোহিঙ্গা ও মধ্য আমেরিকার অভিবাসী সংকট নিয়ে।

সংবাদ সংস্থা রয়টার্স গ্রামবাসীর কাছ থেকে তিনটি আলোকচিত্র পান। এতে দেখা যায়, ১০ রোহিঙ্গা মুসলমানকে বেঁধে হাঁটু গেড়ে বসিয়ে রাখা হয়েছে। তৃতীয় ছবিটিতে, অঙ্গপ্রত্যঙ্গ কেটে টুকরো টুকরো করা ও গুলিতে ঝাঁজরা হয়ে যাওয়া তাদের মরদেহ দেখা গেছে।

এ ছাড়া একটি অগভীর কবরে তাদের একসঙ্গে দাফন করার দৃশ্যও ওই ছবিতে রয়েছে।

উল্লেখ্য, ইনদিনের সেই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা জনসমক্ষে নিয়ে আসার জন্য মূলভূমিকা রাখা দুই সাংবাদিকে ৪৯০ দিন ধরে মিয়ানমারের কারাগারে বন্দি রয়েছেন।

fb-share-icon35
fb-share-icon20

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Enjoy this blog? Please spread the word :)