বুধবার | ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং |

চেয়ারম্যান নন, জিএম কাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান: রওশন

নিজস্ব প্রতিবেদক | শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯:
হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের ভাই ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মুহম্মদ (জিএম) কাদেরকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ঘোষনার একদিন পরেই পাল্টা বিবৃতি দিলেন দলের সিনিয়র কো-চেয়ারমান ও সংসদের বিরোধী নেতা রওশন এরশাদসহ জ্যেষ্ঠ নেতারা।

শুক্রবার (১৯ জুলাই) বিকেলে জিএম কাদেরের চেয়ারম্যান হওয়ার বিরোধিতা করে রওশনের নেতৃত্বে দলের জ্যেষ্ঠ নেতারা এই বিবৃতি দেন।

বিবৃতিতে তারা বলেন, জিএম কাদের দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আছেন। তিনি দলীয় ফোরামে সিদ্ধান্ত না হওয়া পর্যন্ত এ দায়িত্ব পালন করবেন। কিন্তু হুট করে আলাপ আলোচনা ছাড়া তাকে নতুন চেয়ারম্যান ঘোষণা হটকারিতা। কারণ তাকে জাপার চেয়ারম্যান করার বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত হয়নি। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী দলীয় ফোরামে সিদ্ধান্ত না হওয়ায় কাদের জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করবেন।

জিএম কাদেরকে নতুন চেয়ারম্যানের ঘোষণা থেকে বিরত থাকার জন্য নেতাদের প্রতি তারা আহ্বান জানান।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) রাজধানীর বনানীতে এক সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রতিষ্ঠাতা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুতে তার ভাই জিএম কাদেরকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ঘোষণা করেন দলটির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ।

সংবাদ সম্মেলনে মহাসচিবের পাশেই ছিলেন নতুন চেয়ারম্যান জি এম কাদের। তবে এসময় দেখা যায়নি এরশাদের স্ত্রী ও দলের সিনিয়র কো চেয়ারম্যান রওশন এরশাদকে।

উল্লেখ্য, ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ১০ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর গত ১৪ জুলাই সকাল সোয়া ৮টার দিকে ৮৯ বছর বয়সে শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সাবেক সামরিক শাসক এরশাদ। গত মঙ্গলবার বেলা ২টা ২৯ মিনিটে রংপুর কালেক্টরেট ঈদগাহ মাঠে চতুর্থ নামাজে জানার পর ওইদিনই বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটে পল্লীনিবাসে এরশাদকে চিরঘুমে শায়িত করা হয়।

মৃত্যুর কিছু দিন আগে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ তার ছোট ভাই জি এম কাদেরকে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও তার অবর্তমানে চেয়ারম্যান ঘোষণা করেন এরশাদ। এ নিয়ে জাপার রাজনীতিতে নানা নাটকীয়ার জন্ম হয়।

fb-share-icon35
fb-share-icon20

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Enjoy this blog? Please spread the word :)