সোমবার | ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং |

ডেঙ্গু প্রতিরোধ ও চিকিৎসায় করণীয়

লাইফস্টাইল ডেস্ক | রবিবার, ২৮ জুলাই ২০১৯:
ডেঙ্গু জ্বর বা ব্রেকবোন ফিভার একটি সংক্রামক ট্রপিক্যাল ডিজিজ। ডেঙ্গু ভাইরাসের কারণে এই রোগ হয়। যে উপসর্গগুলি দেখা যায় তার মধ্যে আছে জ্বর, মাথাব্যথা, পেশি এবং গাঁটে ব্যথা, এবং একটি বৈশিষ্ট্য ত্বকে র‍্যাশ যা হামজ্বরের সমতুল্য। স্বল্প ক্ষেত্রে অসুখটি প্রাণঘাতী ডেঙ্গু হেমোর‍্যাজিক ফিভার-এ পর্যবসিত হয়, যার ফলে রক্তপাত, রক্ত অনুচক্রিকার কম মাত্রা এবং রক্ত প্লাজমার নিঃসরণ অথবা ডেঙ্গু শক সিন্ড্রোম-এ পর্যবসিত হয়, যেখানে রক্তচাপ বিপজ্জনকভাবে কম থাকে। আসুন জেনে নেই এই রোগ প্রতিরোধ ও চিকিৎসায় করণীয় সম্পর্কে।

ডেঙ্গু প্রতিরোধে করণীয়:

১. বর্ষায় (এপ্রিল-অক্টোবর) ডেঙ্গু জ্বরের প্রকোপ বাড়ে। এ সময় অধিক সতর্ক থাকুন।

২. ডেঙ্গু জ্বরের বাহক এডিস মশা পরিস্কার পানিতে বংশ বিস্তার করে। অফিস, ঘর ও আশপাশে পানি জমতে দিবেন না। যে কোন পাত্রে জমিয়ে রাখা বা জমে থাকা পানি তিন দিনের মধ্যে পরিবর্তন করুন।

৩. এডিস মশা সাধারণত দিনের বেলা কামড়ায়। যথাসম্ভব লম্বা পোশাক পরুন। দিনে ঘুমানোর ক্ষেত্রেও মশারি ব্যবহার করুন।

ডেঙ্গু আক্রান্ত হলে করণীয়:

১. তীব্র জ্বর, মাথা ব্যথা ও মাংসপেশিতে ব্যথা, শরীরে লালচে দানা ইত্যাদি ডেঙ্গু রোগের লক্ষণ হলেও সাম্প্রতিককালে এর ব্যতিক্রম পাওয়া যাচ্ছে। জ্বরে প্যারাসিটামল ব্যতীত অন্য ব্যথানাশক ওষুধ খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। রোগীকে বেশি বেশি তরল খাবার খাওয়ান।

২. জ্বর হলে নিকটস্থ হাসপাতালে চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করুন ও ডেঙ্গু জ্বরের পরীক্ষা করুন।

৩. জ্বর ভালো হওয়ার পরও ডেঙ্গুজনিত মারাত্মক জটিলতা দেখা দিতে পারে। তাই সতর্ক থাকুন ও হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণ করুন।

fb-share-icon35
fb-share-icon20

Enjoy this blog? Please spread the word :)