বুধবার | ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং |

পুলিশের সঙ্গে প্রেম করে কলেজছাত্রীর সর্বনাশ!

নিউজ ডেস্ক | শুক্রবার, ১৬ই আগস্ট, ২০১৯:
গাইবান্ধা সদর উপজেলায় পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে এক কলেজ ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী কলেজছাত্রীর মা বাদী হয়ে পুলিশ সদস্য আবুু বক্কর সিদ্দিক ও তাকে সহায়তাকারী আমিনুল ইসলামকে আসামী করে সদর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

অভিযুক্ত আবু বক্কর সিদ্দিক রংপুর মেট্রপলিটন পুলিশের কনষ্টেবল পদে কর্মরত রয়েছেন। তিনি গাইবান্ধা সদর উপজেলার মালিবাড়ী ইউনিয়নের পশ্চিম বারবলদিয়া বেকাটারী গ্রামের সাইদুর রহমানের ছেলে এবং আমিনুল একই গ্রামের মকবুল হোসেনের ছেলে।

ভুক্তভোগীর মা জানান, পুলিশ সদস্য আবু বক্কর সিদ্দিক আমার প্রতিবেশী। পরিবারের সকলের অজান্তে আবু বক্কর সিদ্দিক আমার মেয়ের সাথে মোবাইল ফোনে কথাবার্তা বলত। একপর্যায়ে আবু বক্কর সিদ্দিকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। এরপর বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন সময় আবু বক্করের বিভিন্ন আত্মীয়ের বাড়িতে নিয়ে একাধিকবার আমার মেয়েকে ধর্ষণ করে।

এ ঘটনার জানা জানি হলে আবু বক্করকে বিয়ে কথা বলে তালবাহানা শুরু করে ও প্রেমের সম্পর্কের কথা অস্বীকার করে। এরপর স্থানীয়দের নানা কথাবার্তায় লোক লজ্জার ভয়ে আমার মেয়ে কিটনাশক পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। পরে প্রতিবেশীদের সহযোগীতায় গুরুতর অবস্থায় এম্বুলেন্স যোগে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে আমার মেয়ে গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

গাইবান্ধা সদর থানার ওসি খান মো. শাহরিয়ার বলেন, ভুক্তভোগী কলেজছাত্রীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।মামলায় অভিযুক্তদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে

fb-share-icon35
fb-share-icon20

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Enjoy this blog? Please spread the word :)