সোমবার | ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং |

যুক্তরাষ্ট্রের প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্রও কিনবো: এরদোগান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | শনিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ :
সামরিক দিক থেকে বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী হতে চলেছে তুরস্ক। সম্প্রতি দেশটি রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা কিনে বিশ্বব্যাপী হইচই ফেলে দেয়। যুক্তরাষ্ট্রের তীব্র বাধাতেই তারা থেমে থাকেনি।

দেশটি এবার চাইছে যুক্তরাষ্ট্রের প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা। সেই ঘোষণা দিয়ে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান বলেছেন, ‘তার দেশ এবার যুক্তরাষ্ট্র থেকেও ক্ষেপণাস্ত্র কিনবে। এবং এজন্য তিনি নিজেই সরাসরি প্রস্তাব দেবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে।’

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এরদোগান বলেছেন, দুই সপ্তাহ আগে টেলিফোনে মার্কিন প্রেসিডেন্টকে তিনি প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র কেনার আগ্রহের কথা জানিয়েছেন। মাটি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য এই ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা যুক্তরাষ্ট্রের সর্বাধুনিক আবিষ্কারের একটি।’

আগামী সপ্তাহে জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনের সময় দুই নেতার বৈঠকে বিষয়টি নিয়ে ট্রাম্পের সাথে বিস্তারিত কথা বলবেন বলে জানিয়েছে তুর্কি প্রেসিডেন্ট।

দেশটির পার্শ্ববর্তী দেশগুলো সন্ত্রাসী অধ্যুষিত। তাই তাদের নিজস্ব সামরিক শক্তিতে নির্ভোর হতে চায়। এরদোগান বলেন, ‘আমি তাকে বলেছি আমরা এস-৪০০ কিনেছি সেটি কোন ব্যাপার নয়। এখন আপনার কাছ থেকে অনেকগুলো প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র কিনতে চাই। তবে আমি এও বলেছি যে, সেগুলো অবশ্যই এস-৪০০ এর সমমানের হতে হবে।

একই সাথে এই ক্ষেপণাস্ত্র যৌথভাবে উৎপাদন করার বিষয়েও তুরস্কের আগ্রহের কথা ট্রাম্পকে জানান এরদোগান।

ডোনাল্ড ট্রাম্প কিছুদিন আগে বলেছেন, বারাক ওবামার সরকার তুরস্কের কাছে প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র বিক্রি করতে চায়নি, তাই তারা বাধ্য হয়ে রাশিয়ার দিকে ঝুঁকেছে। তাহলে কি ট্রাম্প প্রশাসন আবার তুরস্ককে কাছে টানতে চায়? তারা বিক্রি করতে প্যাট্রিয়ট ক্ষেপণাস্ত্র? এই প্রশ্নের উত্তর পেতে হলে অপেক্ষা করতে হবে আরো কিছু দিন?

fb-share-icon35
fb-share-icon20

Enjoy this blog? Please spread the word :)