বুধবার | ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং |

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে যৌন নির্যাতন, থানায় মামলা

ঝিনাইদহ | বুধবার,২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯:
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার কলেজপাড়া এলাকায় ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ুয়া এক ছাত্রীকে যৌন নির্যাতন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। যৌন নির্যাতনকারী কালীগঞ্জ উপজেলার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের রনজিৎ দাসের ছেলে মিন্টু কুমার দাস। মিন্টু শহরের মুরগীহাটার কসমেটিক্স এর ব্যবসায়ী। এ ঘটনায় বুধবার সকালে ভিকটিমের মা বাদি হয়ে কালীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মেয়েটি কালীগঞ্জের সলিমুন্নেছা বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রী।

নির্যাতনের শিকার মেয়েটি জানায়, মঙ্গলবার (২৪ সেপ্টেম্বর) স্কুল থেকে বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে এক বান্ধবীর সাথে বাসায় আসি। ঘরের মধ্যে বান্ধবীর সাথে গল্প করছিলাম। হঠাৎ মিন্টু আমাদের বাসায় আসে। আমাকে বলে ওই মেয়েটা কে। ওই মেয়েকে এখনই চলে যেতে বলো নাহলে সমস্যা আছে। আমার বান্ধবী চলে যায়। এরপর আমাকে জড়িয়ে ধরে এবং আমার শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয়। আমার শরীর এখনো ব্যাথা করছে। এরপর মিন্টু আমাকে ২০ টাকা দিয়ে বলে, কাউকে কিছু বলবি না।

ভিকটিমের মা জানায়, আমার দুই মেয়ে স্কুল থেকে এসে বাড়িতেই থাকে। আমি বাইরে কাজ করতে যায়। আমি আসার পর আমার মেয়ে কান্না শুরু করে। এরপর সে আমাকে সব খুলে বলে। মিন্টু নামের একটি ছেলে আমার মেয়ের শরীরে হাত দিয়েছে। কালীগঞ্জ থানার ওসি মোঃ ইউনুচ আলী বলেন, ৬ষ্ট শ্রেণির এক ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে মেয়েটির মা বাদি হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছে। যৌন নির্যাতানকারীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

fb-share-icon35
fb-share-icon20

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Enjoy this blog? Please spread the word :)