1. shahinit.mail@gmail.com : dhaka24 : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  2. arifturag@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  3. sasujan83@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  4. mdjihadcfm@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০২:০৯ পূর্বাহ্ন

আসছে চলচ্চিত্র নির্মাণসংক্রান্ত নতুন নীতিমালা

ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  • প্রকাশিত | সোমবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

বিনোদন ডেস্ক | সোমবার,৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯:
একেতো হল নেই, দর্শক নেই, কোটি টাকায় সিনেমা নির্মাণ করে প্রযোজকরা ব্যয়ের টাকাও তুলতে পারছেনা না। এর মধ্যে তারকা কলাকুশলীদের অনিয়মে এই ব্যয় আরও বেড়ে যাচ্ছে। তাই চলচ্চিত্রের মন্দার দিনে অনিয়ম আর অপচয়ের লাগাম টেনে ধরছে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট সংগঠনগুলো। এ জন্য তৈরি হয়েছে চলচ্চিত্র নির্মাণসংক্রান্ত একটি নীতিমালা।

সম্প্রতি এ বিষয়ে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতির নেতা কামাল মো. কিবরিয়া লিপুকে আহ্বায়ক ও চলচ্চিত্র পরিচালক নেতা বদিউল আলম খোকনকে সদস্যসচিব করে ১১ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এই কমিটি চলচ্চিত্র নির্মাণসংক্রান্ত একটি নীতিমালা তৈরি করেছে। এই নীতিমালায় একটি ছবি তৈরিতে অভিনয়শিল্পী থেকে শুরু করে ছবির শুটিংয়ের সঙ্গে জড়িত প্রোডাকশন ব্যবস্থাপক, লাইট, ক্যামেরাসহ কারিগরি বিষয়গুলোর প্রতিদিনের খরচ উল্লেখসহ শুটিংসংশ্লিষ্ট সব বিষয় রাখা হয়েছে।

এই নীতিমালার গুরুত্বপূর্ণ কিছু বিষয় হলো:

* এক লাখ টাকার ওপরে যাদের পারিশ্রমিক, তারা কোনো যাতায়াত ভাড়া পাবেন না।
* কলাকুশলীদের অবশ্যই প্রযোজকের সঙ্গে চুক্তি করতে হবে।
* চুক্তি অনুযায়ী পারিশ্রমিক তিন কিস্তিতে নিতে হবে। প্রথম কিস্তিতে ২৫ শতাংশ ও * পরবর্তী দুই কিস্তিতে বাকি ৭৫ শতাংশ টাকা পরিশোধ করা হবে।
* সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত শুটিংয়ের সময়। মাঝে এক ঘণ্টা বিরতি।
* যদি কোনো শিল্পী বা কলাকুশলী সময়মতো না আসেন, তার জন্য শুটিং শুরু করা না গেলে তার ক্ষতিপূরণ তাকেই বহন করতে হবে। কিন্তু শিল্পী আসার পরও যদি নির্দিষ্ট সময়ে ক্যামেরা ওপেন করা না হয়, তাহলে সেই ক্ষতিপূরণ দেবেন পরিচালক।
* পোশাকের জন্য কোনো শিল্পীকে টাকা দেওয়া হবে না। গল্পের প্রয়োজনে তা প্রোডাকশন থেকে তৈরি করে দেওয়া হবে। শুটিং শেষে প্রযোজকের কাছে পোশাক ফেরত দিতে হবে। কোনো পোশাক শিল্পীর পছন্দ হলে, সেই পোশাক তৈরির খরচ দিয়ে শিল্পী নিতে পারবেন।
* ছবির প্রচারণার জন্য প্রধান শিল্পীকে অবশ্যই ছবি মুক্তির আগে পাঁচ দিন শিডিউল দিতে হবে।

নির্মাণসংক্রান্ত এই নীতিমালা সম্পর্কে কমিটির আহ্বায়ক কামাল মো. কিবরিয়া বলেন, ‘যদি নীতিমালাসংক্রান্ত বিষয়গুলো মেনে একটি শৃঙ্খলার মধ্যে আনা যায়, তাহলে খুবই স্বাচ্ছন্দ্যে একজন প্রযোজক, পরিচালক ছবি নির্মাণ করতে পারেন। এতে করে বর্তমান সময়ে যে নির্মাণ ব্যয়, তা ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ কমে আসবে।’

চলচ্চিত্র নির্মাণসংক্রান্ত ধারাগুলো মাসখানেকের মধ্যেই কার্যকর হবে বলে জানান কমিটির সদস্যসচিব বদিউল আলম। তিনি বলেন, ‘পরিচালক, প্রযোজক পরিবেশক, চিত্রগ্রাহক ও সম্পাদনা সমিতিতে ধারাগুলো পাস হয়ে গেছে। চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিসহ আরও দু-একটি সমিতির মতামত নেওয়া হবে। আশা করছি, এক মাসের মধ্যেই নতুন নিয়মে চলচ্চিত্র নির্মাণ শুরু করা যাবে।’

fb-share-icon35
56

আরো সংবাদ পড়ুন




© All rights reserved &copy | 2016 dhaka24.net
Theme Customized BY WooHostBD