বুধবার | ৩০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং |

সামরিক শক্তিতে বিশ্বে ৪৫তম বাংলাদেশ

নিউজ ডেস্ক | সোমবার,৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯:
সামরিক শক্তিতে ১১ ধাপ এগিয়ে বাংলাদেশ এখন বিশ্বে ৪৫তম অবস্থানে। বিশ্বের ১৩৭টি দেশের মধ্যে এ জরিপে গত বছর বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ৫৬তম।

গ্লোবাল ফায়ার পাওয়ার নামের একটি জরিপকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়। প্রতিষ্ঠানটির প্রতিবেদনে এই র‌্যাংকিংয়ে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামরিক শক্তির দেশ যুক্তরাষ্ট্র, দ্বিতীয় রাশিয়া ও তৃতীয় চীন।

প্রতিবেদনটিতে চতুর্থ সামরিক শক্তির দেশ হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে ভারত। এরপরেই রয়েছে ফ্রান্সের নাম। আর ১৩৭তম দেশের তালিকায় রয়েছে ভুটান। পাকিস্তানের অবস্থান ১৫তম। আর প্রতিবেশী মিয়ানমারের অবস্থান ৩৭তম।

গ্লোবাল ফায়ার পাওয়ার নামের ওই প্রতিষ্ঠানের প্রতিবেদন ৫৫টি মাপকাঠির ভিত্তিতে সামরিক শক্তিমত্তার সূচকে স্কোর দেয়া হয়েছে। বাংলাদেশ ০.৭১৫৬ শক্তিসূচক নিয়ে ৪৫তম অবস্থানে রয়েছে। ০.০৬১৫ শক্তিসূচক নিয়ে প্রথম যুক্তরাষ্ট্র। ০.০৬৩৯ শক্তিসূচক নিয়ে দ্বিতীয় রাশিয়া। আর তৃতীয় চীনের শক্তিসূচক ০.০৬৭৩। ভারত ০.১০৬৫ শক্তিসূচক নিয়ে চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা তথ্যমতে, বাংলাদেশের সামরিক বাহিনীর মোট সদস্য ১,৬০,০০০।
রিপোর্টে বলা হয়েছে, বিমান বাহিনীতে এবছরের হিসাবে ১৭৫টি এয়ারক্রাফট রয়েছে। গ্লোবাল র‌্যাংক দাঁড়িয়েছে ১৩৭টি দেশের মধ্যে ৫৩তম। এছাড়া ৪৫টি ফাইটার এয়ারক্রাফট, ৪৫টি অ্যাটাক এয়ারক্রাফট, ৫৭টি ট্রান্সপন্ডার রয়েছে। হেলিকপ্টার রয়েছে ৫৯টি।

সেনাবাহিনীর কাছে রয়েছে ৩৪০টি কমব্যাট ট্যাংক। ৫২১টি সাঁজোয়া যান, ১৮টি সেলফ-প্রপেলড আর্টিলারি, ৩৪০টি টোড আর্টিলারি, ৩৬টি রকেট প্রজেক্টর।

নৌবাহিনীর কাছে মোট নৌ সরঞ্জাম ৮৯টি। যার মধ্যে ৬টি ফ্রিগেট, ৬টি করবেট ও ২টি সাবমেরিন রয়েছে। প্যাট্রোল ভেসেল রয়েছে ২৬টি আর মাইন ওয়ারফেয়ার ৪টি।

fb-share-icon35
fb-share-icon20

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Enjoy this blog? Please spread the word :)