মঙ্গলবার | ৭ই জুলাই, ২০২০ ইং |

ভুল বোঝাবুঝি থেকে সীমান্তে গোলাগুলি-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান

নিজস্ব প্রতিবেদক | শুক্রবার,১৮ অক্টোবর ২০১৯:
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, রাজশাহীর চারঘাট সীমান্তে গোলাগুলির ঘটনায় ভারতের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হবে না। ভুল বোঝাবুঝির কারণে এমন ঘটনা ঘটেছে। বাংলাদেশ ও ভারতের সম্পর্ক অন্তত সৌহার্দ্যপূর্ণ। কিন্তু, এটি একটি অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা। এতে আমরা মর্মাহত।

শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) সকালে প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, আপনারা নিশ্চয় জানেন বিজিবি এবং বিএসএফ’র মধ্যে একটা চমৎকার সম্পর্ক রয়েছে। হঠাৎ করে এমন দুর্ঘটনাতে আমরা সবাই মর্মাহত। এই সমস্যা নিরসনে দুই বাহিনীর প্রধান পর্যায়ে আলোচনা চলছে। দুই দেশের আলাপের মাধ্যমে এটার সুরাহা হবে। সবকিছু আলোচনার মাধ্যমে শেষ হবে বলে আমরা মনে করি।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) দিনগত রাতে ঘটনা-পরবর্তী তাৎক্ষণিক এক সাক্ষাৎকারে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিজিবি’র গুলিতে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) সদস্য নিহতের ঘটনা অনাকাঙ্ক্ষিত বলে মন্তব্য করেন।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, আপনারা জানেন আমাদের নদীতে ইলিশ মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। নদীতে জেলেদের গতিবিধি নিয়ন্ত্রণে রাখা হয়েছে। বিজিবি হঠাৎ করে দেখতে পায় নদীতে মাছ ধরছে কয়েকজন জেলে।

বিজিবি তাদেরকে চ্যালেঞ্জ করলে, তারা জানতে পারে জেলেগুলো ভারতের নাগরিক। তারা বাংলাদেশ সীমানায় ৫০০/৬০০ গজ ভেতরে চলে এসেছিল। এর মধ্যে একজন বিএসএফ’র সদস্য রয়েছে।

তখন বিজিবি বলেছে, যেহেতু আপনি ভেতরে ঢুকে গিয়েছেন, তাই ফ্ল্যাগ মিটিংয়ের মাধ্যমে আপনাকে হস্তান্তর করব। এই অবস্থায় তারা দ্রুত সরে পড়ার জন্য তাদের স্পিডবোট চালিয়ে পালাচ্ছিল। পালানোর সময় বিএসএফ ফায়ার ওপেন করেছে, তখন বিজিবিও কাউন্টার ফায়ার ওপেন করে। তখনই ঘটনাটি ঘটে।

এসময় তিনি আরও বলেন, এ বিষয়টি নিয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। দুইদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর মধ্যে আলোচনা চলছে।

বিএসএফের দাবি, বিজিবির গুলিতে মারা গেছে তাদের এক সদস্য।

fb-share-icon35
fb-share-icon20

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Enjoy this blog? Please spread the word :)