রবিবার | ৭ই জুন, ২০২০ ইং |

জুভেন্টাস ছেড়ে রিয়ালে যাচ্ছে রোনালদো!

স্পোর্টস ডেস্ক:
পুরোনো ঘর রিয়াল মাদ্রিদেই ফিরে আসছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। পর্তুগিজ যুবরাজ নাকি স্পেনে ফিরে যাওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন নিজেই, গণমাধ্যমের এমন খবরে তোলপাড় ফুটবল দুনিয়া। রোনালদো কি আসলেই ইতালি ছেড়ে চলে যাবেন? জুভেন্টাস কি করোনার আর্থিক ধকলে এত বড় ফুটবলারকে শেষ পর্যন্ত বিক্রি করতেই বাধ্য হবে?

স্প্যানিশ গণমাধ্যমে যেমন খবর বেরিয়েছে, তাতে এমনটাই ধরে নিয়েছিলেন সবাই। কেননা করোনার কারণে জুভেন্টাসও বড় ক্ষতির মুখে পড়েছে। যদিও এই সংকটে ক্লাবের ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে রোনালদোরা জুন পর্যন্ত বেতনের ৯০ ভাগই ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

কিন্তু সংকট কেটে গেলেও রোনালদোর মতো দামি খেলোয়াড়ের ব্যয় বহন করা কঠিন হবে জুভেন্টাসের। ২০১৮ সালে রিয়াল মাদ্রিদ থেকে ১০০ মিলিয়ন পাউন্ডে তুরিনে আসেন রোনালদো। চুক্তি অনুযায়ী, তিনি প্রতি সপ্তাহে বেতন নেন ৫ লাখ পাউন্ড। বছরে সিআরসেভেনের বেতন প্রায় ২৭ মিলিয়ন পাউন্ড।

চলতি মৌসুম বাতিল হয়ে গেলে জুভেন্টাস যে আর্থিক ক্ষতিতে পড়বে, তাতে আগামী মৌসুমে রোনালদোকে ধরে রাখা কঠিন হবে। সাবেক রিয়াল তারকা সেটি উপলব্ধি করেই আগামী ট্রান্সফার উইন্ডোতে রিয়ালে ফেরার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। স্প্যানিশ গণমাধ্যমের দাবি ছিল এমন।

তবে ইতালিয়ান ওয়েবসাইট ‘কালসিওমরকাতো.কম’ বলছে উল্টো। তাদের প্রতিবেদনে এসেছে, রোনালদো আগামী মৌসুমেও জুভেন্টাসেই থাকছেন। কেননা তুরিনের ক্লাবটি রোনালদোর পারফরম্যান্সে ভীষণ খুশি। এই মুহূর্তে যদি তারা রোনালদোকে দলে টানতে চাইতো, তবে আরও অনেক বেশি ব্যয় করতে হতো।

কিন্তু রোনালদো এখন জুভেন্টাসেই আছেন। তাই পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী তারকাকে ছাড়ার মতো ভুল করবে না জুভরা। তার চেয়ে বড় কথা হলো, রিয়াল মাদ্রিদ এখন পর্যন্ত ৩৫ বছর বয়সী এই স্ট্রাইকারকে দলে নেয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেনি। তাদের মধ্যে সম্পর্ক ভালো হলেও আগামী কয়েক মাসের মধ্যে হঠাৎই রিয়ালের পরিকল্পনায় রোনালদোর নামটি চলে আসা অস্বাভাবিক।

সব দিক বিবেচনায় রোনালদো আগামী মৌসুমেও জুভেন্টাসেই থাকবেন বলে দাবি করছে ইতালিয়ান ওয়েবসাইটটি। আর সেটি হলে ওল্ড লেডি শিবিরের জন্য স্বস্তির খবরই।

fb-share-icon35
fb-share-icon20

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Enjoy this blog? Please spread the word :)