1. shahinit.mail@gmail.com : dhaka24 : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  2. arifturag@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  3. sasujan83@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  4. mdjihadcfm@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ০৮:১৯ অপরাহ্ন

গুপ্তধনের লোভে বোনকে হত্যা, ছোট ভাই আটক

ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  • প্রকাশিত | মঙ্গলবার, ৭ জুলাই, ২০২০

ডেস্ক রিপোর্ট:
রংপুরের পীরগাছায় নিখোঁজের ২০ ঘণ্টা পর পুকুর থেকে উদ্ধার হওয়া ডিএমপি তুরাগ থানার এসআই ফজল মাহমুদের স্ত্রী আকলিমা বেগমের (৩০) মৃত্যুর রহস্য উন্মোচন হয়েছে। গুপ্তধন নিয়ে লোভে পুকুরের পানিতে চুবিয়ে তাকে হত্যা করেছে আপন ছোট ভাই শহিদুল ইসলাম।

এঘটনায় উপজেলার ইটাকুমারি গ্রাম থেকে তার ছোট ভাই শহিদুল ইসলামকে আটকের পর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে এই তথ্য জানা গেছে। সে পীরগাছা উপজেলার তালুক ঈশাদ ডারারপাড় গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে পীরগাছা থানার ওসি (তদন্ত) ফেরদৌস ওয়াহিদ।

তিনি জানান, রবিবার রাতে পুলিশ উপজেলার ইটাকুমারি গ্রাম থেকে আকলিমা বেগমের ছোট ভাই শহিদুল ইসলামকে আটক করা হয়। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে সে বলে তাদের বাড়ি কাছে একটি বটগাছ রয়েছে সেখানে জ্বিন থাকে। ওই জ্বিন তার বোনকে স্বপ্নে বলে তোকে গুপ্তধন দেয়া হবে। বাড়ির পাশের পুকুরে স্বর্ণের কলসি রয়েছে। যা তাকে দেয়া হবে। বিষয়টি আকলিমা তার ছোট ভাই শহিদুল ইসলামকে জানান। পরে শহিদুল ইসলাম ওই গুপ্তধনের লোভে নিজের বোনকে পুকুরের পানিতে চুবিয়ে মেরে ফেলে।

গ্রেফতারের পর তাকে পীরগাছা আমলী আদালতে হাজির করা হলে সে বিচারকের সামনে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে এসব জানান। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

এর আগে নিখোঁজের ২০ ঘণ্টা পর গত বৃহস্পতিবার বিকেলে পীরগাছা উপজেলার তালুক ইসাদ ডারারপাড় গ্রামের বাড়ির পাশের পুকুর থেকে আকলিমা বেগমের লাশ উদ্ধার করে পীরগাছা থানা পুলিশ।

fb-share-icon35
56

আরো সংবাদ পড়ুন




© All rights reserved &copy | 2016 dhaka24.net
Theme Customized BY WooHostBD