মঙ্গলবার | ৪ঠা আগস্ট, ২০২০ ইং |

একের পর এক ছিন্ন মাথা মিলছে, রহস্য কী?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
পশ্চিম আফ্রিকার দেশ মালি। দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রত্যন্ত একটি শহর ফানা। ২০১৮ সাল থেকে এই শহরে একই কায়দায় একের পর এক মানুষ খুন হচ্ছে। এমন খুনের সবশেষ শিকার ৪০ বছর বয়সী সাবেক সেনাসদস্য বাকারি।

সাবেক সেনাসদস্য বাকারি’র ভাই বাউবাউ সাঙ্গারে শূন্যদৃষ্টিতে আঙ্গুল দিয়ে একটা জায়গা দেখান। ঠিক ওই জায়গাতেই ১০ জুন সকালে তার ভাই বাকারির ছিন্ন মাথা পড়েছিল। আর পাশেই ছিল ধড়।

বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফানা শহরে কে, কেন বা কীভাবে মানুষ খুন করছে, তা এখন পর্যন্ত রহস্য হয়েই আছে। সাঙ্গারে তার ভাইয়ের খণ্ডবিখণ্ড লাশ পাওয়ার ৪০ মিনিটের মাথায় ঘটনাস্থলে পুলিশ আসে। তারা স্থানটি ঘিরে রাখে।

পুলিশ ঘটনাস্থলে মোটরসাইকেলের টায়ারের চিহ্ন দেখতে পায়। একটি লোহার রড পায়। আর বাড়ির পেছনের দিকে পায় রক্তের ফোঁটাও। হত্যাকাণ্ডের ধরন দেখে পুলিশের তদন্ত কর্মকর্তারা হতবাক।

তারা বলছেন, প্রায় একই কায়দায় খুনগুলো হচ্ছে। সম্ভবত ছুরি বা কুড়াল দিয়ে ধর থেকে মাথা ছিন্ন করা হয়। লাশগুলো সাধারণত সকালের দিকেই পওয়া যায়। লাশের পাশে রক্তও পাওয়া যায় না।

তদন্ত কর্মকর্তাদের ধারণা, খুনিরা সম্ভবত খুন করে রক্ত সংগ্রহ করে। ঠিক কী কারণে খুনগুলো করা হচ্ছে, এর কোনো অকাট্য প্রমাণ তাদের কাছে নেই। নানা পদক্ষেপ নেওয়ার পরও শহরটিতে একের পর এক একই কায়দায় খুন হচ্ছে।

শহরটিতে প্রায় ৩৬ হাজার মানুষের বাস। রহস্যময় খুনের ঘটনায় শহরের বাসিন্দাদের মধ্যে ভীতি ছড়িয়ে পড়েছে।

স্থানীয় গোত্রপ্রধান আদামা ত্রোর বলেন, ‘একমাত্র স্রষ্টাই জানেন। আমরা জানি না, কারা খুনগুলো করছে।’

fb-share-icon35
fb-share-icon20

সময় বাচাঁতে ঘরে বসে কেনা-কাটা

Enjoy this blog? Please spread the word :)