1. shahinit.mail@gmail.com : dhaka24 :
  2. arifturag@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  3. mahbub@gmail.com : mahbub1 :
  4. sasujan83@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  5. sasujan82@gamil.com : Dhaka 24 : Dhaka 24
শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ০৮:০৭ পূর্বাহ্ন

টিআইবি’র প্রতিবেদন ‘সঠিক-নির্ভরযোগ্য নয়’: কাদের

Reporter Name
  • প্রকাশিত | বৃহস্পতিবার, ১ অক্টোবর, ২০২০

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট:
একাদশ জাতীয় সংসদে সংসদ সদস্যদের ‘শতাংশ ভাগ’ নিয়ে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) প্রকাশিত প্রতিবেদন ‘সঠিক, নির্ভরযোগ্য ও তথ্যভিত্তিক নয়’ বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

‘সংসদে একচ্ছত্র ক্ষমতার চর্চা জোরদার হয়েছে’ বলে টিআইবি যে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে তা-ও ভিত্তিহীন- বলছেন কাদের।

গতকাল বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) “পার্লামেন্ট ওয়াচ: একাদশ জাতীয় সংসদ – প্রথম থেকে পঞ্চম অধিবেশন (জানুয়ারি-ডিসেম্বর ২০১৯)” শীর্ষক এক গবেষণা প্রতিবেদনে টিআইবি জানায়, চলতি একাদশ জাতীয় সংসদের সংসদ সদস্যদের মধ্যে ৬১ শতাংশ ব্যবসায়ী আর ৫ শতাংশ রয়েছেন প্রকৃত রাজনীতিক। বাকিদের মধ্যে আইনজীবী ১৩ শতাংশ এবং অন্যান্য পেশার ২১ শতাংশ। প্রথম জাতীয় সংসদে ১৮ শতাংশ সদস্যের পেশা ছিল ব্যবসা। এটি ক্রমান্বয়ে বাড়তে বাড়তে একাদশ সংসদে এসে ৬১ শতাংশে দাঁড়িয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) রাজধানীর সেতু ভবনের ঊর্ধ্বমুখী সম্প্রসারিত অংশের অনুষ্ঠানিক উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এ-সংক্রান্ত প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিরোধী দলগুলোর সদস্য সংখ্যা কম হলেও তাদের পর্যাপ্ত সময় দেয়া হচ্ছে, সকল কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছে তারা। জনগণের ভোট নিয়ে তারা যদি আসন সংখ্যা বাড়াতে না পারে তার দায় তো সংসদের নয়।’

তিনি বলেন, ‘এমপিদের মধ্যে কেউ আইনজীবী, চিকিৎসক আবার কেউ ব্যবসার সাথে জড়িত। জনগণের আস্থা ও সমর্থন নিয়ে তারা সংসদে এসেছেন এবং বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছেন, তা তো অপরাধ নয়।’

‘উপনির্বাচনে বিএনপির প্রার্থীদের ভয়-ভীতি দেখানো হচ্ছে’- বিএনপির এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এটা তাদের চিরাচরিত অভিযোগ। বিএনপি উপনির্বাচনে শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকার ঘোষণাকে স্বাগত জানাই। তারা শেষ পর্যন্ত মাঠে থাকবে কি-না; তা জনগণ বিশ্বাস করতে পারছে না।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপি শেষ পর্যন্ত ভোটের মাঠে থাকুক তা আমরাও চাই। জনগণ যে রায় দেবেন তা আমরা মেনে নেবো।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘অপ্রয়োজনীয় প্রকল্প গ্রহণ ও নির্মাণ ব্যয় কমিয়ে কাজের গুণগত মান বৃদ্ধি করতে হবে।’

এসময় নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন তিনি।

সেতু ভবনের ঊর্ধ্বমুখী সম্প্রসারিত অংশের অনুষ্ঠানিক উদ্বোধনে সেতু সচিব মো. বেলায়েত হোসেনসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আরো সংবাদ পড়ুন
© All rights reserved &copy | 2016 dhaka24.net
Theme Customized BY WooHostBD