1. shahinit.mail@gmail.com : dhaka24 : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  2. arifturag@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  3. sasujan83@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  4. mdjihadcfm@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৫৫ পূর্বাহ্ন

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন: সম্পাদকদের আশ্বাস দিলেন মন্ত্রীরা

ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  • প্রকাশিত | রবিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক,রবিবার,৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৮:
বহুল আলোচিত ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন-২০১৮’ সংসদে পাস হয়েছে। আর এতে উদ্বিগ্ন হন সাংবাদিকসহ সুধী সমাজ। সংসদে পাশ হওয়ার আগে সংসদীয় কমিটি সম্পাদক পরিষদ ও সাংবাদিক নেতাদের সাথে বৈঠকে বসলেও চূড়ান্ত খসড়ায় কোন পরিবর্তন আনেনি। এরই প্রেক্ষিতে সম্পাদক পরিষদ নতুন করে উদ্বেগ জানায়। মানববন্ধন কর্মসূচিও করতে চেয়েছিলেন তারা। তথ্যমন্ত্রীর অনুরোধে সে কর্মসূচি থেকে সরে রবিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) মন্ত্রীদেন সাথে বৈঠকে বসে সম্পাদক পরিষদ।

আর এ বৈঠকে মন্ত্রীরা জানান, সম্পাদক পরিষদ যেসব উদ্বেগ ও দাবি জানিয়েছে, সেগুলো নিয়ে সরকার আরও আলোচনা করে তা নিরসনের উদ্যোগ নেবে। তবে নতুন করে আলোচনার জন্য মন্ত্রিসভার অনুমোদন নেওয়া হবে। রবিবার সচিবালয়ে সম্পাদক পরিষদের সঙ্গে সরকারের তিন মন্ত্রী ও একজন উপদেষ্টার বৈঠক শেষে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

অন্যদিকে সম্পাদক পরিষদও আশা প্রকাশ করে বলেছেন, তারাও মনে করে আলোচনার মাধ্যমে একটা গ্রহণযোগ্য সমাধানে পৌঁছানো সম্ভব হবে।

আলোচনা সভায় সরকারের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এবং প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী।

সম্পাদক পরিষদের পক্ষে ছিলেন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক, ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনাম, নিউজ টুডের রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ, প্রথম আলোর মতিউর রহমান, যুগান্তরের সাইফুল আলম, নিউএজের নূরুল কবির, মানবজমিনের মতিউর রহমান চৌধুরী, কালের কণ্ঠের ইমদাদুল হক মিলন, সংবাদের খন্দকার মনিরুজ্জামান, বাংলাদেশ প্রতিদিনের নঈম নিজাম, ইনকিলাবের এএমএম বাহাউদ্দিন এবং বণিক বার্তার দেওয়ান হানিফ মাহমুদ।

বৈঠক শেষে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, ‘সম্পাদক পরিষদের আপত্তি ও বক্তব্যগুলোকে মন্ত্রিসভায় তুলে ধরা হবে। আগামী ৩ অক্টোবরের মন্ত্রিসভার বৈঠকে হয়তো তুলে ধরা হবে না। কারণ অনেকগুলো অ্যাজেন্ডা আছে। পরের সভায় তুলে ধরা হবে। তারপর মন্ত্রিসভা যে কার্যপরিধি ঠিক করে দেবে, সেই অনুযায়ী আলোচনায় বসার জন্য তারা সম্মত হয়েছেন।’

সম্পাদক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজ আনাম বলেন, ‘তারা আলোচনার এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান। তারা মনে করেন, যে আইনটি সংসদে পাস হয়েছে সেটা সংবিধানে বাক ও গণমাধ্যমের যে স্বাধীনতা দেওয়া হয়েছে, তার লঙ্ঘন করবে। এটি মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ ও গণতন্ত্রেরও পরিপন্থী। ওনারা আশ্বাস দিয়েছেন, আলোচনা করে সমঝোতায় আসতে পারবেন।’

fb-share-icon35
56

আরো সংবাদ পড়ুন




© All rights reserved &copy | 2016 dhaka24.net
Theme Customized BY WooHostBD