1. shahinit.mail@gmail.com : dhaka24 : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  2. arifturag@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  3. sasujan83@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  4. mdjihadcfm@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
January 20, 2022, 8:36 am

রোনালদোর সঙ্গে সম্পর্ক হয়েছিল, তবে সেটা দু’পক্ষের সম্মতিতে

Reportar Name
  • Update Time | Friday, October 12, 2018,

৯ বছর আগের ঘটনায় রেশ যে এতপরে এসে পড়বে, সেটা ঘূর্ণাক্ষরেও কল্পনা করতে পারেননি পর্তুগিজ সুপার স্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ২০০৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসে মার্কিন নারী ক্যাথরিন মায়োরগার সঙ্গে রোনালদোর যে শারীরীক সম্পর্ক হয়েছিল সেটা সত্য ঘটনা। তবে সেদিন ক্যাথেরিনকে জোরজবদস্তি করেননি সিআর সেভেন। যা হয়েছিল তার সবই ছিল দু’জনের সম্মতিতে। এমন দাবি করলেন খোদ রোনালদোর আইনজীবী।

লাস ভেগাস ভিত্তিক রোনালদোর আইনজীবী সরাসরি ধর্ষণের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আমার মক্কেল তার বিরুদ্ধে আনা ধর্ষণের অভিযোগ সম্পূর্ণরূপে উড়িয়ে দিচ্ছেন। তাদের মধ্যে যা হয়েছিল, তার সম্পূর্ণই ছিল দু’জনের সম্মতিতে।’

পর্তুগিজ ফুটবল তারকা রোনালদোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের যে অভিযোগ আনা হয়েছিল, তা সম্পূর্ণ সাজানো এবং মিথ্যা। এ মর্মে তার আইনজীবী পিটার এস ক্রিশ্চিয়ানসেন একটি বিবৃতিতে জানান, লিকস নামক ওয়েবসাইট এবং জার্মান এক ম্যাগাজিনে আমার মক্কেলের (রোনালদো) বিরুদ্ধে ক্যাথরিনের যে সাক্ষাৎকার প্রকাশিত হয়েছে, তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। ক্যাথরিনের সঙ্গে যৌনমিলনে ক্রিশ্চিয়ানো লিপ্ত হয়েছিলেন ঠিকই; কিন্তু তা দু’পক্ষের সম্মতিতেই।’

সপ্তাহ দুয়েক আগে রোনালদোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনেন ৩৫ বছর বয়সী ওই মার্কিন নারী। জার্মানির একটি ম্যাগাজিনে ক্যাথরিন মায়োরগার একটি সাক্ষাৎকার প্রকাশিত হয়। যেখানে ওই তরুণী দাবি করেছিলেন, ২০০৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসে একটি হোটেলে তাকে ধর্ষণ করেন রোনালদো। শুধু তাই নয়, ধর্ষণের ঘটনা যেন প্রকাশ না পায়, এ জন্য ক্যাথেরিনকে মোটা অংকের অর্থ দিয়েছিলেন সিআর সেভেন।

ক্যাথেরিন মায়োরগার এই বক্তব্য প্রকাশিত হওযার পর থেকেই ৫ বারের বিশ্বসেরা এই ফুটবল তারকার সঙ্গে ওই মার্কিনি তরুণীর সম্পর্ক নিয়ে শুরু হয় নানা আলোচনা-সমালোচনা। যদিও নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে রোনালদো সরাসরি এই অভিযোগ অস্বীকার করেন।

রোনালদোর আইনজীবী পিটার এস ক্রিশ্চিয়ানসেন বলেন, ‘মিস্টার রোনালদো সব সময়ই ব্যক্তিত্ব রক্ষা করে চলেন। আজও তা তিনি করে যাচ্ছেন। ২০০৯ সালে লাস ভেগাসে যা ঘটেছিল, তা সম্পূর্ণই হয়েছিল তাদের দু’জনের সম্মতিতে।’ একই সঙ্গে ক্রিশ্চিয়ানসেন এটাও নিশ্চিত করেন যে, ২০১০ সালে ক্যাথেরিনের সঙ্গে একটি সমঝোতা চুক্তিও করেছিলেন সিআর সেভেন। তবে আইন প্রতিষ্ঠানটি ৩ লক্ষ ৭৫ হাজার ডলারের সেই চুক্তির কপি খুঁজছে এখনও।

পিটার এস ক্রিশ্চিয়ানসেন বলেন, ‘মিস্টার রোনালদো দু’জনের সম্মতির বিষয়টি কিন্তু অস্বীকার করেনি। তারা পরস্পরের সম্মমিতেই মিলিত হয়েছিলেন।’

fb-share-icon35
56

More news
© All rights reserved &copy | 2016 dhaka24.net
Theme Customized BY WooHostBD