1. shahinit.mail@gmail.com : dhaka24 : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  2. arifturag@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  3. sasujan83@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  4. mdjihadcfm@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০২:৪৩ অপরাহ্ন

সিংগাইরে চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলায় ৪৮ ঘণ্টায় চার্জশিট

ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  • প্রকাশিত | বুধবার, ৯ জুন, ২০২১

মানিকগঞ্জের সিংগাইরে একটি চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলায় ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দাখিল করেছেন থানা পুলিশ।

মামলার আসামিরা হলেন- মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার পূর্ব অরঙ্গবাদ গ্রামের মোকছেদ আলীর ছেলে জাহিদ হোসন (২৭) ও একই গ্রামের মৃত রহিজ উদ্দিনের ছেলে মো. শরীফ (২৬)।

গত মঙ্গলবার আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও সিংগাইর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রহিম।

এর আগে গত সোমবার আসামিরা মানিকগঞ্জ চিপ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট গোলাম সারোয়ারের আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। এছাড়া হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত লোহার রডসহ আনুষাঙ্গিক জিনিসপত্র আলামত হিসেবে উদ্ধার করা হয়েছে। মামলায় মোট ১০ জন ব্যক্তিকে সাক্ষী করা হয়।

মামলার এজাহার ও নিহতের স্বজনেরা জানান, গত শনিবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার বেতিলা-মিতরা ইউনিয়নের অরঙ্গবাদ গ্রামের আ. মালেকের বাড়িতে চুরি করতে যায় জাহিদ হাসান ও মো. শরিফ নামে দুই চোর। এ সময় গৃহকর্তা মালেক টের পেয়ে দুই চোরকে ধাওয়া করে। মালেকের সাথে চোরদের পিছু নেয় তার ছোট ভাই তারা মিয়া। এক পর্যায় তারা মিয়া সুজন নামে এক অটোরিকশা চালককে সাথে নিয়ে চোরদের পিছু নেয়। দুই চোর দৌড়ে সিংগাইর উপজেলার বায়রা ইউনিয়নের গারাদিয়া এলাকায় পৌঁছালে তারা মিয়া ও অটোরিকশা চালক সুজন তাদের ঝাপটে ধরে। এসময় চোরদের হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে তারা মিয়ার মাথায় আঘাত করে দুই চোর পালিয়ে যায়। মালেক ও স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় তারা মিয়াকে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিংগাইর থানার উপ-পরিদর্শক(এসআই) আব্দুর রহিম জানান, মামলা হওয়ার সাথে সাথে রোববার(৬ জুন) রাতে আসামিদের গ্রেফতার করি। সোমবার আসামিরা আদালতে স্বীকারোক্তি মূলুক জবানবন্দি দেয়। হত্যাকান্ডের আলামতসহ মঙ্গলবার আদালতে অভিযোগপত্র(চার্জসীট) দাখিল করি।

এ ঘটনায় ১০ জন ব্যক্তি সাক্ষী দেয়। এই মামলায় সার্বক্ষণিকক খোঁজ-খবর ও দিকনির্দেশনা দেন মানিকগঞ্জ পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম, সহকারী পুলিশ সুপার (সিংগাইর সার্কেল) রেজাউল হক এবং ওসি সফিকুল ইসলাম মোল্লা। তাঁদের সকলের সহযোগিতা মাধ্যমেই ৪৮ ঘন্টার মধ্যে অভিযোগপত্র দাখিল করতে সক্ষম হই।

fb-share-icon35
56

আরো সংবাদ পড়ুন
© All rights reserved &copy | 2016 dhaka24.net
Theme Customized BY WooHostBD