1. shahinit.mail@gmail.com : dhaka24 : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  2. arifturag@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  3. sasujan83@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  4. mdjihadcfm@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
তিন উপজেলায় থাকছে না নৌকা প্রতীক! - Dhaka 24 | Most Popular Bangla News | Breaking News | Sports
May 21, 2022, 8:43 am

তিন উপজেলায় থাকছে না নৌকা প্রতীক!

Reportar Name
  • Update Time | Sunday, December 5, 2021,

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সহিংসতা এড়াতে কিশোরগঞ্জের হাওরের তিন উপজেলার ২৪ ইউনিয়নে থাকছে না আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতীক নৌকা। ফলে ইউনিয়নগুলোতে উন্মুক্ত থাকছে আওয়ামী লীগের প্রার্থিতা।

শনিবার (৪ ডিসেম্বর) গণভবনে দলের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এমন তথ্যই নিশ্চিত করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের জ্যেষ্ঠপুত্র কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক।

জানা গেছে, পঞ্চম ধাপে আগামী ৫ জানুয়ারি মিঠামইন উপজেলার ৭টি ও অষ্টগ্রাম উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে ভোট গ্রহণের কথা রয়েছে। মিঠামইন উপজেলায় ৭টি ইউনিয়ন হলো গোপদিঘী, মিঠামইন, ঘাগড়া, ঢাকী, কেওয়ারজোর, কাটখাল ও বৈরাটি। অষ্টগ্রাম উপজেলার ৮ ইউনিয়ন হলো দেওঘর, কাস্তুল, অস্টগ্রাম সদর, বাংগালপাড়া, কলমা, আদমপুর, খয়েরপুর আব্দুল্লাপুর ও পূর্বঅষ্টগ্রাম।

ইটনা উপজেলার ৯টি ইউনিয়নেও ভোট হবে। ইটনা উপজেলায় ৯টি ইউনিয়ন হলো রায়টুটি, ধনপুর, মৃগা, ইটনা, বড়িবাড়ী, বাদলা, এলংজুড়ি, জয়সিদ্ধি ও চৌগাংগা। তবে এই এলাকার নির্বাচনী তফসিল এখনও ঘোষণা হয়নি।

আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতীক নৌকা না থাকায় ইউনিয়নগুলোতে উন্মুক্ত থাকছে আওয়ামী লীগের প্রার্থিতা। এসব ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীরা স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবেন।

রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক জানান, চলমান ইউপি নির্বাচনে দেশের কিছু কিছু জায়গায় সহিংসতা দেখা দিয়েছে। তাই সার্বিক দিক বিবেচনা করে আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আমার সংসদীয় আসন কিশোরগঞ্জ-৪ এর তিন উপজেলার ২৪ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক না দেওয়ার অনুরোধ জানাই।

শনিবার (৪ ডিসেম্বর) গণভবনে দলের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী আমার এ প্রস্তাবে সম্মতি দিয়েছেন। সভা শেষে কেন্দ্র থেকে আমাকে এ বিষয়ে জানানো হয়েছে।

ভোটাররা বলছেন, দলীয় প্রতীক ছাড়া ভোট হলে ভালো প্রার্থীরাও নির্বাচনে দাঁড়াতে সুযোগ পাবে। এতে সংঘাত, কলহ বিবাদ অনেকটাই কমে আসবে। প্রার্থী বেশি হলে ভোটাররা যোগ্য লোক বেছে ভোট দিতে পারবেন।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কামরুল হাসান শাহজাহান বলেন, হাওরের তিন উপজেলা আওয়ামী লীগের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত। প্রার্থীরা সবাই আওয়ামী লীগের। দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হলে নিজেদের মধ্যে মতানৈক্য দেখা দিত। তাই দলীয়ভাবে মনোনয়ন না দেওয়ার সিন্ধান্ত হয়েছে। এতে করে দলীয় সংঘাত কমে আসবে।

More news
© All rights reserved &copy | 2016 dhaka24.net
Theme Customized BY WooHostBD