1. shahinit.mail@gmail.com : dhaka24 : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
  2. arifturag@gmail.com : ঢাকা টোয়েন্টিফোর : ঢাকা টোয়েন্টিফোর
বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ০৯:২৯ পূর্বাহ্ন

পূর্বাচলে ঘুরতে গিয়ে স্ত্রীকে পেট্রোল দিয়ে পুড়িয়ে হত্যা

তাসলিমা তমা
  • প্রকাশ | বুধবার, ২২ মে, ২০২৪
  • ৫৯ পাঠক

পাষন্ড হত্যাকারী সুমন পেশায় একজন ট্যাক্সি চালক। তার গ্রামের বাড়ি কুমিল্লা মুরাদ নগরে হলেও প্রথম স্ত্রী শিমু ও দেড় বছরের ছোট মেয়ে এবং মা সহ ডিএমপি,তুরাগ থানাধীন রানাভোলা নামক স্থানে ভাড়াটে হিসেবে বসবাস করতেন।

আনুমানিক দেড়/ দু’বছর পূর্বে এই নৃশংস হত্যাকাণ্ডের শিকার বিলকিস (২৬) কে তার অভিভাবকের অগোচরে বিয়ে করেন এবং রানাভোলা থেকে আনুমানিক দুই কিলোমিটার দূরে নয়াপাড়া নামক স্থানে অন্য একটি বাসা ভাড়া করে রাখেন। উবারে গাড়ি চালনা করে স্বল্প আয়ে তাকে দুটি সংসার চালানোর দায়িত্ব নিতে হয়। গত তিন /চার মাস যাবৎ দ্বিতীয় স্ত্রীর বিলকিস তার নিকট একটু বেশি টাকা দাবি করা শুরু করে এতে করে উভয়ের মধ্যে তিক্ততা শুরু হয়। এক পর্যায়ে হত্যাকারী সুমন তার দ্বিতীয় স্ত্রী বিলকিসকে পৃথিবী থেকে সরিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করে। মাঝে মধ্যে সে বিলকিসকে নিয়ে প্রর্বাচল এলাকায় ঘুরতে যেতেন এবং সুযোগ খুঁজতেন। ভিকটিমকে হত্যার উদ্দেশ্য গত ১৯ মে দুপুরের পর দ্বিতীয় স্ত্রীর বিলকিসকে নিয়ে প্রর্বাচল এলাকায় ঘুরতে যায়। পথিমধ্যে চা পান করে এবং জায়গা ও সুযোগ খুঁজতে থাকে। বিকাল আনুমানিক চারটার পর ২৪ নং সেক্টরে একটি জঙ্গল এলাকায় নিয়ে যান। জায়গাটা খুব নিরিবিলি দেখে সেখানে গাড়ি থামান বিলকিস গাড়িতে বসে থাকে এবং আসামী সুমন গাড়ি হতে বের হয়ে পাইপ দিয়ে পেট্রোল বের করে একটি বোতলে ভরে। গাড়িটি তখনো স্টার্ট অবস্থায় ছিল কিছুক্ষণ পর বিলকিস গাড়ি থেকে বের হয় তৎক্ষণাৎ বোতলের পেট্রোল বিলকিসের গায়ে ছিটিয়ে দেয় এবং ম্যাচের কাঠি জ্বালিয়ে দ্রুত গায়ের ছুড়ে মারে। আগুন দাউদাউ করে জ্বলে উঠে, বিলকিস বাচার জন্য জোরে জোরে চিৎকার শুরু করে হত্যাকারী পাষণ্ড সুমন গাড়ি নিয়ে দ্রুত সরে পড়ে চিৎকারের আশেপাশের লোকজন ছুটে আসে এবং বিলকিসকে একটি ড্রেনের মধ্যে হতে উদ্ধার করে প্রথমে কুর্মিটোলা হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে অবস্থার অবনতি হলে দ্রুত তাকে শেখ হাসিনা বার্ন হাসপাতালে হস্তান্তর করা হয় সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরের দিন ২০ মে সকাল আনুমানিক ১৮: ঘটিকায় অসহ্য যন্ত্রণায় নিয়ে বিলকিস মারা যায়।
ঘটনার পর ঘাতক সুমন আত্মগোপনে চলে যায় পরবর্তীতে এই হত্যাকাণ্ডের আসামিকে আইনের আওতায় আনার জন্য র‍্যাব-১ এর অভিযানে দলছায়া তদন্ত শুরু করে এবং আসামি গ্রেফতারের জন্য গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে।
এরই ধারাবাহিকতায় গত ২১ মে ২০২৪ তারিখ আনুমানিক বিকাল ১৮ ঘটিকায় সময় র‍্যাব-১ আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে উক্ত ঘটনার হত্যাকারী পাসন্ড স্বামীর সুমন গাজীপুর জেলার বাসন থানাধীন এলাকায় আত্মগোপনে আছে উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাব-১ এর অভিযানে দলটি গাজীপুর জেলার বাসন থানাধীর নাওজোর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে এই হত্যাকাণ্ডের পাষন্ড স্বামী আসামি মিজানুর রহমান সুমন, পিতা মফিজুর ইসলাম ,থানা: মুরাদনগর, জেলা: কুমিল্লাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ হত্যাকাণ্ডের বিষয়ের সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন।

লাইক কমেন্ড ও শেয়ার করে সাথে থাকুন-

আরো খবর

© All rights reserved | 2016 dhaka24.net by |

Theme Customized BY WooHostBD